জমিয়ত মহাসচিবসহ গ্রেফতারকৃত হেফাজত নেতৃবৃন্দকে মুক্তি দিতে হবে: জমিয়ত- জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০২১

জমিয়ত মহাসচিবসহ গ্রেফতারকৃত হেফাজত নেতৃবৃন্দকে মুক্তি দিতে হবে: জমিয়ত- জনকল্যাণ২৪

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল্লামা শায়খ জিয়া উদ্দীন, সহসভাপতি আল্লামা আব্দুর রব ইউসুফী,মাওলানা জহিরুল হক ভুইয়া,শায়খুল হাদীস আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক,শায়খুল হাদীস মাওলানা নুরুল ইসলাম খান,মাওলানা জোনায়েদ আল হাবীব, মাওলানা আনোয়ারুল করীম,মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মাওলানা আব্দুল বছির,এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ সাদী,যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা বাহাউদ্দীন যাকারিয়া, মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজ, মাওলানা ফজলুল করীম কাসেমী, মাওলানা মোহাম্মদ উল্লাহ জামী,মুফতি মুনির হোছাইন কাসেমী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা হাফেজ নাজমুল হাসান,আজ গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আল্লামা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দীসহ গ্রেফতারকৃত হেফাজত নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে জমিয়ত নেতারা বলেন,
দেশের আলেম-ওলামাদের উপর যেভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে,তাদেরকে গুম,গ্রেফতার ও মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে । এতে মনে হচ্ছে আলেম-ওলামা কোন কোন ভিনদেশী নাগরিক। এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে কেউই আল্লাহর পাকড়াও থেকে রেহাই পাবে না। নিরীহ মাদ্রাসার ছাত্র শিক্ষকদের উপর অন্যায় ভাবে গুলি চালিয়ে শহীদ করে দেওয়া এবং শত শত নিরাপরাধ মানুষকে জীবনের তরে পঙ্গু করে দেওয়া হচ্ছে, আবার তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে গ্রেফতার ও হয়রানি করা হচ্ছে।

 

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, সহকারী মহাসচিব মুফতি সাখাওয়াত হোসাইন রাজি, মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী, মাওলানা ইলিয়াস হামিদী, মুফতি শরীফ উল্লাহ ও মুফতি বশির উল্লাহ,মাওলানা আতাউল করীম মাকসুদসহ,নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ৪জন, ভোলায় ৭জন, সিলেটে ৭জন, গাজীপুরে ৪ জন, নরসিংদীতে ১জনকে ডিবি অফিসে হয়রানি ও গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন করা হচ্ছে।

 

আমরা তার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি, এহেন পরিস্থিতিতে ওলামা-মাশায়েখসহ দেশবাসী গভীরভাবে উদ্বেগ্ন ও উৎকণ্ঠিত।

 

জমিয়ত নেতারা বলেন, বর্তমান সরকার দলীয় প্রশাসন ভিন্ন মতাবলম্বীদের জন্য দেশটাকে একটি কারাগারে পরিণত করে রেখেছে। কোন সম্মানী ব্যক্তিদের ইজ্জতের কোন তোয়াক্কা নেই। দেশের সাধারণ মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা নেই। এভাবে একটি সভ্য জাতির মান-সম্মান নিয়ে টিকে থাকতে পারে না।

 

সুতরাং আমরা পরিষ্কার বলে দিতে চাই, এদেশের মানুষের আস্থার প্রতীক, আদর্শ ও শান্তিপ্রিয় সমাজ বিনির্মাণের চালিকাশক্তি ওলামায়ে কেরামদের উপর জেল জুলুম নির্যাতন বন্ধ করুন। মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করুন। অন্যায় ভাবে গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দিন। অন্যতায় এ দেশের আলেম উলামা ও দেশপ্রমিক জনতা বসে থাকবেনা,পিঠ দেওয়ালে ঠেঁকে গেলে পিছনে যাওয়ার জায়গা থাকেনা।
সুতরাং বুঝে-শুনে পা বাড়ান পরিণতি শুভ হবেনা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ