জনগণের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর ব্যবস্থা না করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত অমানবিক: জমিয়ত- জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ৫:৪৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৬, ২০২১

জনগণের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর ব্যবস্থা না করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত অমানবিক: জমিয়ত- জনকল্যাণ২৪

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল্লামা শায়খ যিয়া উদ্দীন ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী আজ এক বিবৃতিতে বলেছেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সতর্কতা পদক্ষেপ হিসেবে লকডাউন যতটা না জরুরি তারচেয়ে বেশি জরুরি জনগণের মৌলিক অধিকার ও বেঁচে থাকার উপকরণ সুনিশ্চিত করা। জনগণের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর ব্যবস্থা না করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত অমানবিক।

 

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে দেয়া যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেন, গত ৫ই এপ্রিল থেকে ১১ই এপ্রিল পর্যন্ত এক সপ্তাহব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ, লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত আসতে পারে। অথচ লকডাউনে সাধারণ জনতা ও ব্যবসায়ীদের স্বাভাবিক জীবন যাত্রা চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। লকডাউনে ব্যবসায়িক ধসের কারণে পথে বসার উপক্রম ব্যবসায়ীদের। খেয়ে না খেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে শ্রমিক ও দিনমজুর শ্রেণির লোকেরা। হতাশা ও নানান ভোগান্তির শিকার হচ্ছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত পেশাজীবী মানুষ।

 

জমিয়তের পক্ষে বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারী ব্যতীত লকডাউনে কেউ ভালো নেই। দেশের সর্বস্তরের মানুষ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার চেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে পেটের ক্ষুধায়। তারা দৈনন্দিন জীবনের স্বাভাবিক চাহিদা মিটানোর ব্যর্থতাজনিত মানসিক যন্ত্রণায় ভুগছেন। সরকারের উচিত, জনস্বাস্থ্যের নিরাপত্তা ও জনতার মৌলিক প্রয়োজনের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা। অন্যথায় এর ব্যত্যয় ঘটলে লকডাউন প্রহসনের লকডাউনে পরিণত হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ