মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মৌলভীবাজারে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব’র আলোচনা সভা- জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০২১

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মৌলভীবাজারে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব’র আলোচনা সভা- জনকল্যাণ২৪

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার উদ্যোগে এক আলোচনা সভার আয়োজন হয় ।২৬ মার্চ (শুক্রবার) সকাল ১১টায় মৌলভীবাজার শহরের স্থানীয় দিল্লী রেস্টুরেন্টে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

 

বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মোফাদ আহমেদ এর সঞ্চালনায়, সভাপত্বিত করেন বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার সভাপতি এম,এ রোমান আহমেদ।

 

উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার প্রধান উপদেষ্টা,লেখক,গবেষক ও ব্যাংকার ড.মোহাম্মদ আবু তাহের।

 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,মৌলভীবাজার কুদরত উল্লাহ ফাউন্ডেশনের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ সাহাবুদ্দিন, এডভোকেট ড. আব্দুল মতিন চৌঃভিপি,মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার উপদেষ্টা জিতু তালুকদার, সিনিয়র সাংবাদিক তাজুদুর রহমান,মৌলভীবাজার জেলা মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি বেলাল তালুকদার, মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা শ.ই সরকার জগলু তালুকদার, মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক শাহ নেওয়াজ চৌধুরী সুমন।

 

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার সহ সভাপতি আমির উদ্দিন, বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাংগঠনিক ও কমলগঞ্জ উপজেলার আহবায়ক আব্দুস সালাম,বাংলাদেশ প্রেসক্লাব মৌলভীবাজার জেলা শাখার কোষাধক্ষ সুহেল আহমদ,দৈনিক মানবসমাজের মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি এনামুল হক আলম,ক্ষুদে বিজ্ঞানী ও সাংবাদিক এস,এম কিবরিয়া,নির্বাহি সদস্য শামীম তালুকদার,মুমিন ইসলাম,আমিনুর রহমান,নুরুল ইসলাম,সৈয়দ সোয়েব আলী সুমন,মুন্নি রায়,জিবি টিভি অনলাইনের ফটো সাংবাদিক ফয়ছল আহমদ,মামুন আহমেদ মুন্না ও ইমরান ।

 

প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন,১৯৭১ সালের এদিনে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষিত হয়েছিল। ইতিহাসের পৃষ্ঠা রক্তে রাঙিয়ে, আত্মত্যাগের অতুলনীয় দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করে একাত্তরের এই দিনে যে সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এ দেশের মানুষ, দীর্ঘ ৯ মাসের মুক্তিযুদ্ধে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জন তার চূড়ান্ত পরিণতি। রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের সূচনার সেই গৌরব ও অহঙ্কারের দিন আজ।
সমাপিনী বক্তব্যে এম এ রোমান আহমদ বলেন,১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী অতর্কিতে নিরস্ত্র বাঙালির উপর আক্রমণ চালালে এরপর দীর্ঘ ন’মাস সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা অর্জন করি স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। আমি সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করছি মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী বীর শহিদদের, যাঁদের সর্বোচ্চ ত্যাগের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি স্বাধীনতা। আমি কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সমর্থক, সকল স্তরের যাঁরা আমাদের অধিকার আদায় ও মুক্তিসংগ্রামে বিভিন্নভাবে অবদান রেখেছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ