মাহে রমজানে অসহায় একশত পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দেবে জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন জকিগঞ্জ- জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ৭:৪০ অপরাহ্ণ, মার্চ ২০, ২০২১

মাহে রমজানে অসহায় একশত পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দেবে জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন জকিগঞ্জ- জনকল্যাণ২৪

বিশেষ প্রতিনিধি:-জনকল্যাণ সর্বোত্তম মানবতার পরিচয়” হাসিসে রাসুলের আলোকে গঠিত, বাংলাদেশ, সিলেট, জকিগঞ্জ উপজেলার দ্বীনদরদী ও বিশিষ্ট সমাজসেবীগনের দ্বারা পরিচালিত প্রবাসী সংগঠন ‘জনকল্যাণ ফাউন্ডেশণ জকিগঞ্জ’ আসন্ন রামাজানকে সামনে রেখে উপজেলার ১শত জন শিক্ষিত অভাবি পরিবারকে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রি উপহার দেয়ার একটি ব্যতিক্রমধর্মী উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেছে।

 

বর্তমান সমাজে চিহ্নিত গরিব, অসহায় ও দুঃস্থদের প্রতি সমাজ দরদী, ভিত্তবান ও দানশীলদের নজর পড়লেও একই সমাজে কওমী মাদ্রাসা বা বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরী জীবি ও গ্রামের মসজিদে ইমামতি করা এমনও কিছু আত্মমর্যাদাশীল শিক্ষিত লোক বিদ্যমান আছেন, যারা স্বল্প বেতনে (তাও আবার মাসকে মাস অপরিশোধিত) চাকুরি করে বৃদ্ধ মাতা-পিতা ও স্ত্রী-সন্তানসহ ৫/৭ জনের পরিবার চালাতে নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থায় দিনাতিপাত করেন। যারা আত্মমর্যীদার কারণে নিজেদের এই করুন অবস্থাটা সমাজে না পারে কাউকে কইতে, আবার না পারে বিষয়টি সইতে।

 

আসন্ন পবিত্র রামাজান উপলক্ষ্যে এই সমস্ত সাহাবি আদর্শে আদর্শবানদের মধ্য হতে উপজেলার পৌরসভাসহ নয়টি ইউনিয়নে তুলনামূলক বেশি অভাবী (ফাউন্ডেশণ কতৃক নির্ধারিত বিশেষ ফোরামের বিশেষ জরিপ মত) কমপক্ষে ১শটি পরিবারকে দুই থেকে তিন হাজার টাকা দামের প্যাকেজে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রি উপহার দিয়ে পাশে দাড়াতে ‘জনকল্যাণ ফাউন্ডেশণ জকিগঞ্জের’ নেতৃবৃন্দ বিশেষ উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেন।

 

এই উদ্দ্যোগে ফাউন্ডেশনের বাহিরের যেকোন ভিত্তবান দানশীল ভাই অংশগ্রহণ করতে পারেন। মনে রাখবেন- আপনার আমার দুই থেকে তিন হাজারটা টাকা কিন্তু একটি আদর্শবান আত্মমর্যাদাসম্পন্ন পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে। পারে একজন গায়রাত সম্পন্ন পরিবার প্রধানকে পবিত্র রামাজানে পরিবারিক টানাপোড়ন হতে স্বস্তি দিয়ে নিশ্চিন্তে ইবাদাত বন্দেগী করে আপনার আমার জন্য মহান মালিকের দরবারে দোআর প্রতি নিয়োজিত করতে। কোন এক আরব্য কবি বলেছিলেন-
“যারে করিবে দান তোমার বিপদে হয়ত পাবেনা তারে, আল্লাহ’ই করিবে প্রেরণ মানব রুপে কোন ফেরেস্তারে।”

 

গতকাল ১৯/৩/২০২১ ঈ. দিবাগত রাত বাংলাদেশ টাইম ১২ ঘটিকা হতে শুরু হওয়া ফাউন্ডেশণের সাধারণ পরিষদের এক জরুরী জুম মিটিং মাধ্যমে উপরোল্লেখিত উদ্দ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

 

ফাউন্ডেশণের সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগি লন্ডন প্রবাসী ক্বারী মাওলানা আব্দুল হাফীজ শাহবাগী’র সভাপতিত্বে এবং জয়েন্ট সেক্রেটারী কাতার প্রবাসী আবু আফিফা আতিকুর রাহমান’র পরিচালনায় অনুষ্টিত উক্ত ভার্চুয়াল জুম মিটিং এ কালামে পাক থেকে তেলাওয়াত করেন প্রশিক্ষণ সম্পাদক সৌদী প্রবাসী মাওলানা লুৎফুর রাহমান।

 

ফাউন্ডেশণের সেক্রেটারী জেনারেল আন্তর্জাতিক মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, লন্ডন ইকরা টিভির নিয়মিত আলোচক মুফতি আব্দুল মুনতাকিম মিটিং এর মূল এজেন্টার উপর আলোচনা করতে গিয়ে আগামী পবিত্র মাহে রামাজান উপলক্ষ্যে একমাত্র মহান আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের স্বার্থে ব্যাথিক্রমধর্মী একটি উদ্দোগ হাতে নেয়ার প্রস্তাব আনলে এতে সুপামর্শ প্রদান করেন ফাউন্ডেশণের অভিবাবক ফোরামের প্রধান বিশিষ্ঠ দানবির লন্ডন প্রবাসী মওালানা আব্দুল আজীজ সিদ্দিকী, উপপ্রধান বিশিষ্ট সংগঠক ও সমাজসেবি মাওলানা আব্দুর রব, সদস্য সৌদী প্রবাসী মাওলানা আব্দুল জলীল ও মাওলানা জয়নাল আবেদিন সাহেবগণ।

 

ফাউন্ডেশণের সভাপতি মল্ডলির সিংহভাগ সকল সদস্য এবং সম্পাদক মন্ডলির সকল বিভাগের গুরুত্বপুর্ণ প্রায় অর্ধ শতের কাছাকাছি নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে উক্ত মিটিং এ দীর্ঘ আলোচনা পর্যালচানার পর সর্ব সম্মতিক্রমে উপরোল্লেখিত উদ্দ্যোগসহ আরও কিছু গুরুত্বপুর্ণ সিন্ধান্ত চুড়ান্তভাবে গৃহিত হয়।

 

পরিশেষে শায়খুল হাদিস আল্লামা মুকাদ্দাস আলী বারগাত্তী/মুনশিবাজারী, শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল মুছাব্বির আইওরী, আল্লামা শফিকুল হক কিশোরগঞ্জী, ও শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল কুদ্দুস বারহালীসহ জকিগঞ্জ উপজেলার শীর্ষ বুজুর্গানে দ্বীনের নেক হায়াত কামনা, ফাউন্ডেশণের সেক্রেটারী জেনারেল মুফতি আব্দুল মুনতাকিম সাহেবের অসুস্থ আম্মাজানসহ ফউন্ডেশণ সংশ্লিষ্ট সকল অসুস্থদের তড়িৎ রুগমুক্তি এবং এলাকার উন্নতি ও শান্তির জন্য বিশেষ মুনাজাত করে হযরাতুল আল্লাম মাওলানা আব্দুম আজীজ সিদ্দিকি সাহেবের দোআর মাধ্যমে মিটিং এর পরিসমাপ্তি হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ