নির্মাণাধীন মাদরাসা ভেঙে দিল বন বিভাগ: ফাঁকা গুলি, ৪ নারী আহত- জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ৮:১৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২২, ২০২০

নির্মাণাধীন মাদরাসা ভেঙে দিল বন বিভাগ: ফাঁকা গুলি, ৪ নারী আহত- জনকল্যাণ২৪

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের মাধবপুর ইউনিয়নের ধলাইরপাড় এলাকায় নির্মাণাধীন ক্বারী ছবিল দাখিল মাদরাসা ভেঙে দিয়েছে বন বিভাগ। এ সময় বন বিভাগের হামলায় ৪ নারী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। ঘটনাটি মঙ্গলবার বিকালে ধলাইপার নামক এলাকায় ঘটে।

জানা গেছে, ধলাইরপাড় এলাকার ১ একর ৬০ শতক জমির মালিকানা নিয়ে বন বিভাগের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে ধলাইপাড় গ্রামের মাস্টার আব্দুল খালিকের মামলা চলছিল। মাস্টার আব্দুল খালিকের দাবি তিনি আদালতের রায় পেয়ে ক্বারী ছবিল দাখিল মাদরাসার নামে কিছু জমি রেজিস্ট্রি করে দেন। দানকৃত ওই জমিতে ক্বারি ছবিল দাখিল মাদরাসার নির্মাণ চলছিল।

মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে বন বিভাগ পুলিশ নিয়ে আকস্মিক অভিযান চালিয়ে ফাঁকা গুলি ছুরে নির্মাণাধীন মাদরাসাটিতে ভাঙচুর করে। এ সময় অভিযানকারীদের হামলায় মায়ারুন বেগম (৪৫), হাসনা বেগম (৩৫), নেবারুন বেগম (৩২) ও চম্পা বেগম (২৮) নামে ৪ নারী আহত হন। আহতদের কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

লাউয়াছড়া বন রেঞ্জ কর্মকর্তা মোতালেব হোসেন বলেন, এ জমির প্রকৃত মালিক বন বিভাগ। আদালতের রায়ও বন বিভাগের পক্ষে। তাই মঙ্গলবার আমরা ওই জমি উদ্ধারে গেলে নারী পুরুষের সম্বলিত দখলদারদের বাধার কারণে আমরা জমি উদ্ধার করতে পারিনি। এ সময় বনকর্মী বা পুলিশ কোনো হামলা বা ফাঁকা গুলি করেনি বলে রেঞ্জ কর্মকর্তা অস্বীকার করেন।

কমলগঞ্জ থানার ওসি মো. আরিফুর রহমান বলেন, এ জমি নিয়ে বনবিভাগ ও দখলদারদের মাঝে মামলা চলছিল। বন বিভাগ জমির প্রকৃত মালিক দাবি করে দখলদারদের উচ্ছেদের উদ্যোগ নেয়। সেখানে শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করে পুলিশ।

সূত্র- কালেরকণ্ঠ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ