তুরস্ক ও ও গ্রীসে শক্তিশালী ভূমিকম্পে এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ২৪- জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০২০

তুরস্ক ও ও গ্রীসে শক্তিশালী ভূমিকম্পে এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ২৪- জনকল্যাণ২৪

তুরস্ক ও গ্রিসে শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৪ জনে দাঁড়িয়েছে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছে ৭ শতাধিক। আহতরা বেশ কিছু ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়েছে। তাদের উদ্ধারে অভিযান চলছে।

এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকের এই ভূমিকম্পের পর ইজিয়ান সাগরের তীরবর্তী এলাকায় সুনামি দেখা দিয়েছে। সাগর উত্তাল হয়ে উঠায় তুরস্কের ইজমির শহরের ও গ্রিসের কিছু রাস্তা পানিতে ডুবে গেছে। গ্রিনিচ সময় ১১টা ৫০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিট) আঘাত হানা ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৬ দশমিক ৬।

ভূমিকম্পের সময় তুরস্কের ইস্তাম্বুল, ইজমির ও অন্যান্য শহরের বাসিন্দারা বাড়ি-ঘর ছেড়ে রাস্তায় নেমে আসেন। গ্রিসেও একই দৃশ্য দেখা যায়।

তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরি ব্যবস্থাপনা সংস্থা (এএফএডি) এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এএফএডি বলেছে, তুরস্ক ও গ্রিসে শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ৭০৯ জন।

ইজমিরের মেয়র টুনক সোয়ার জানিয়েছেন, শহরটিতে প্রায় ২০টি ভবন ভেঙে পড়েছে। ইজমিরের গভর্নর বলেছেন, ধ্বংসস্তূপের নিচে থেকে ৭০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালে তুরস্কের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৪ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে অন্তত ১৭ হাজার মানুষের প্রাণহানি ঘটে।

২০১১ সালেও দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের ভ্যান প্রদেশে শক্তিশালী এক ভূকম্পনে ৬ শতাধিক মানুষ মারা যান। গ্রিসে সর্বশেষ প্রাণঘাতী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল ২০১৭ সালে। ওই বছরের জুলাইয়ে সামোসের কাছের কোস দ্বীপে শক্তিশালী ভূমিকম্পে অন্তত দু’জনের প্রাণহানি ঘটে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ