কানাইঘাটকে মাদকমুক্ত করতে পুলিশের চুড়ান্ত ঘোষণা – জনকল্যাণ২৪

প্রকাশিত: ১০:১০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৮, ২০২০

কানাইঘাটকে মাদকমুক্ত করতে পুলিশের চুড়ান্ত ঘোষণা – জনকল্যাণ২৪

মীম সালমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ সিলেটের   কানাইঘাট উপজেলাকে মাদক মুক্ত করতে মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করেছে কানাইঘাট থানা পুলিশ। বাংলাদেশ পুলিশের নতুন আইজিপি ড. বেনজীর আহমদ বিপিএম বার সারাদেশকে মাদকমুক্ত করার জন্য জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করে ইতিমধ্যে মাঠ পর্যায়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই আলোকে সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম সিলেট জেলার অর্ন্তভুক্ত সকল থানা এলাকাকে মাদকমুক্ত করার জন্য কাজ করে যাচ্চেন।

কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা পিপিএম গতকাল শুক্রবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে স্থানীয় সাংবাদিকদের এ তথ্য প্রদান করেন। কানাইঘাটকে মাদকমুক্ত করার জন্য ৬টি জোনে বিভক্ত করা হয়েছে। লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নকে ১নং জোন, লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ও বড়চতুল ইউনিয়নকে ২নং জোন, দিঘীরপাড় পূর্ব ও সাতবাঁক ইউনিয়নকে ৩নং জোন, কানাইঘাট পৌরসভা ও সদর ইউনিয়নকে ৪নং জোন, গাছবাড়ী এলাকাকে ৫নং জোন এবং রাজাগঞ্জ ইউনিয়ন ও শহর উল্লাহকে ৬নং জোনে বিভক্ত করা হয়েছে। প্রতিটি জোন এলাকায় ২ জন সাব ইন্সপেক্টর পদ মর্যাদার অফিসারকে নিয়োজিত করে প্রতিদিন জোন এলাকার মাদকের সাথে সম্পৃক্তদের তথ্য গ্রহণ সহ এলাকার সর্বস্তরের মানুষ, জনপ্রতিনিধি, সূধীজন, সামাজিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে নিজ নিজ জোন এলাকাকে মাদকমুক্ত করার জন্য থানা পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। থানা পুলিশের প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তি হুবুহু তুলে ধরা হলো-
কানাইঘাট থানা পুলিশ প্রশাসন সিলেট জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএমের একান্ত ইচ্ছার বাস্তবায়নে একাট্টা হয়ে কানাইঘাট থানা এলাকা মাদকমুক্ত ঘোষণায় প্রতিটি পাড়ায়, মহল্লায়, ওয়ার্ডে কানাইঘাট থানা এলাকার জনগণকে নিয়ে বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে মাদকের বিরুদ্ধে আজ থেকে জিহাদ ঘোষণা করা হল। কানাইঘাট থানা এলাকায় মাদক নির্মূলে সার্বিকভাবে সহায়তা করার জন্য জনগণকে উদার্ত্ত আহ্বান জানাচ্ছি। কানাইঘাট থানা এলাকায় যদি কোন লোক মদ, গাঁজা, ইয়াবা এবং ফেন্সিডিল ক্রয়-বিক্রয় সহ সেবন করে তবে তাদের সঠিক তথ্য গোপনে থানার সরকারী বিট মোবাইল (০১৭০৮-৩৫১৮৮৬) নাম্বারে সরবরাহ করার জন্য অনুরোধ করা হল এ বিষয়ে প্রতিটি ইউনিয়ন এবং পৌরসভার বিট এলাকায় মাইকিং, লিফলেট বিতরণ সহ সভার আয়োজন করা হবে। অযথা কোন মিথ্যা তথ্য দিয়ে কোন ধরনের বিভ্রান্তি সৃষ্টি সহ কোন নিরীহ লোক যাতে হয়রানীর শিকার না হয় সে বিষয়ে সচেতন নাগরিকদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। যারা মাদক ছেড়ে সুস্থ জীবনে ফিরতে চায় তাদের জীবিকা নির্বাহে পুলিশ সার্বিকভাবে সহায়তার হাত বাড়াবে।

থানায় থাকা তালিকাভুক্ত অপরাধীদের গ্রেফতারসহ মাদক নির্মূলে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে সবাইকে থানা প্রশাসনের মহৎ এ উদ্দ্যেগকে উপহাস না করে উৎসাহ ও সহায়তা প্রদানে এগিয়ে আসার লক্ষ্যে আবারও সবার সাহায্য কামনা করছি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ