সততার সুফল ও মিথ্যার কুফল

প্রকাশিত: ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ৬, ২০২০

সততার সুফল ও মিথ্যার কুফল

এইচ এম মাসুদ

সততা:
সততা মানে সাধুতা, সত্যবাদিতা।
নিজের স্বার্থ বড় করে না দেখা এবং অপরের স্বার্থ ক্ষুণ্ণ হোক তা না চাওয়ার নামই হচ্ছে সততা, যার মধ্যে এই মহৎ গুণটি রয়েছে তাকেই সৎ ব্যক্তি বলা হয়।
যার মধ্যে সততা আছে, সে ন্যায়নীতির প্রতি শ্রদ্ধা রাখবে। তার মধ্যে মানবতাবোধ থাকবে।
সে সর্বদা সত্য কথা বলবে এবং মানুষের ও ভালোবাসা অর্জন করবে। এমনকি তার চরম শত্রুরাও তাকে বিশ্বাস করবে। যেমন বিশ্বাস করেছিল কাফের মুশরিকরা হযরত মুহাম্মদ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে।
আর সততা মানুষকে ভালো কাজের উপর পরিচালনা করে। আর ভালো কাজ মানুষকে জান্নাতে পৌঁছিয়ে দেয়। তাই আমাদের শ্রেষ্ঠ ধর্ম ইসলাম আমাদেরকে কাথাবার্তায়, কাজকর্মে ও আচার-আচরণে সততা রক্ষা করারা জন্যে জোর তাগিদ দিয়েছে।

সততা সম্পর্কে আল্লাহ তা’য়ালা বলেন, “হে ঈমানদারগ! তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং সত্য কথা বল।”

অন্য আয়াতে আল্লাহ বলেন,  “যারা সত্য নিয়ে এসেছে এবং সত্যকে সত্য বলে জেনেছে তারাই আল্লাহভীরু।”

রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
“তোমারা নিজেদের জন্য সত্যবাদিতা অপরিহার্য করে নিবে, কেননা তা সৎকাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত।”
আর এই দুটি গুণের অধিকারী জান্নাতী।

অপর দিকে যে সমাজে সততার অভাব রয়েছে।
মিথ্যা বিরাজমান সেখানে সুখ-শান্তি নেই। সেখানে অশান্তি আর অশান্তি।  সেখানে বদনাম বিরাজ করে। মিথ্যা মানুষকে সমাজে হেয় করে তোলে।
যে সমাজে সত্যবাদিতার ও সততার অভাব রয়েছে সে সমাজ আস্তে আস্তে ধ্বংসের দিকে চলে যায়। ধ্বংস হয়ে যায়। প্রতারণা ও দুর্নীতি সে সমাজকে আচ্ছন্ন করে।

যদি একবার একটা মিথ্যার অস্তিত্ব পাওয়া যায়.
সেটা প্রত্যেকটা প্রকাশিত সত্যের উপর সংক্রামক সন্দেহ সৃষ্টি করার জন্য যথেষ্ট।

কথায় আছে মিথ্যা বলা মহাপাপ,
মিথ্যা সকল পাপের মুল।

হাদীস আছে, “মিথ্যা মানুষের হায়াত কমিয়ে দেয়,
হায়াত কমিয়ে দেয় এর মানে কি?”
এর মানে হলো তার জিন্দিগি থেকে সব ধরনের বরকত কেড়ে নেয়া হয়।

তাই আমাদের শ্রেষ্ঠ ধর্ম মিথ্যা থেকে বেচে থাকার জন্য জোর তাগিদ দিয়েছেন। আল্লাহ তা’য়ালা ইরশাদ করেন, “মিথ্যা তো তারাই বানায় যারা আল্লাহর নিদর্শনসমূহের প্রতি ঈমান রাখেনা। বস্তুত তারাই মিথ্যাবাদি।”
রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
“মুনাফেক নিদর্শন তিনটি,  ১. কথা বলার সময় মিথ্যা বলা, ২. প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করা, ৩. আমানতের খেয়ানত করে।

তাই আসুন আমরা সবাই সত্যকে আঁকড়ে ধরি
আর মিথ্যাকে বর্জন করি।
আল্লাহ তা’য়ালা আমাদের সবাইকে আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

লেখক : ভোলা জেলা প্রতিনিধি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ