২০২০’ সালকে সংক্ষেপে ‘২০’ লেখার বিপদ

প্রকাশিত: ৬:৩৭ অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০২০

নতুন বছর ২০২০ সাল শুরু হয়ে গেছে। নতুন বছরের শুরু থেকেই ২০২০ সাল লেখা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একটি সতর্কবার্তা ছড়িয়ে পড়েছে। ওই বার্তায় কোনো ডকুমেন্ট বা কাগজপত্রে সই করার সময় ২০২০-কে সংক্ষেপে ২০ লিখতে নিষেধ করা হচ্ছে।

 

ফোর্বস অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। কোনো আইনি ডকুমেন্ট সই করার আগে তারিখ ও সাল যেন ঠিকভাবে লেখা হয়, সে বিষয়টিতে সচেতন হতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বরাতে ফোর্বসের প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, যাঁরা সংক্ষেপে ২০ লিখে সই করবেন, তাঁদের প্রতারিত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। কারণ শুধু ২০ লিখলে এর পেছনে আরও সংখ্যা বসিয়ে ২০১৯,২০১৮, বা ২০১৭ এর মতো পেছনের সাল করে ফেলা সম্ভব। এতে দুর্বৃত্তদের প্রতারণার আশ্রয় নেওয়া সহজ হতে পারে।

 

যুক্তরাষ্ট্রের মেইনের ইস্ট মিলিনোকেট পুলিশ বিভাগের এক ফেসবুক পোস্টে বলা হয়েছে, যখন কোনো আইনি ডকুমেন্টে সই করবেন, তখন পুরোপুরি ২০২০ লিখবেন। তা না হলে সাল বদলে আগ-পিছ করতে পারে দুর্বৃত্তরা। নিজেকে সুরক্ষিত রাখুন। ২০২০ এর সংক্ষেপ করবেন না।

 

ফেসবুকের পাশাপাশি টুইটারেও ২০২০ সালকে সংক্ষেপে ২০ লেখার ব্যাপারে অনেকেই সতর্ক করেছেন।

 

অবশ্য, সতর্কতা বিষয়টি পোস্ট নিয়ে সমালোচনাও হচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন, এতে সতর্কতামূলক পোস্ট দেওয়ার কিছু নেই। ২০১৯ সালের ক্ষেত্রেও শুধু ১৯ লিখলে এ ধরনের ঝুঁকি ছিল। কেউ যদি ৩ /৩ /১৯ তারিখ লিখে থাকেন, তাহলে তা সহজেই ৩/৩/১৯৯১ করে ফেলা যেত। এ ছাড়া ১৯ এর পর ৯২ থেকে ৯৮ পর্যন্ত যেকোনো সাল বসানো সম্ভব ছিল। ২০ লেখার ক্ষেত্রে শুধু ভয় ধরানো ছাড়া এটি আর কিছু নয়।

 

যুক্তরাষ্ট্র পুলিশের পক্ষ থেকে সমালোচনার জবাবে বলা হয়েছে, তারা নিয়মিত ভুয়া কল ও স্ক্যামের বিষয়টি নিয়ে কাজ করে। তারা জানে, যেকোনো তারিখ পরিবর্তন করা যায়। তবে সচেতন থাকলে অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

 

গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট ও ব্যাংকের চেক লেখার ক্ষেত্রে অবশ্যই ২০২০ পুরোটা লেখাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে